tour tips for bangladesh in bangla, travel guide in Bangladesh

কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় যা ভ্রমণকারীদের জানা দরকার

রোমাঞ্চকর অভিযানে বেরিয়ে পড়া মানুষগুলোকে দেখলে বা তাদের অভিযানের কাহিনী শুনলে বা পড়লে প্রায়ই অনেকের মনে হয়, যদি আমিও এমন অভিযানে যেতে পারতাম! যেতে পারেন আপনিও, শুধু দরকার অদম্য ইচ্ছা ও কিছু প্রয়োজনীয় কৌশল সম্পর্কে জানা। যারা অ্যাডভেঞ্চার করে বেড়ায় তাদের সাথে আপনার-আমার পার্থক্য কি? তারা নিজেদের মানসিক ও শারীরিকভাবে প্রস্তুত করেছেন প্রতিটি অভিযানের জন্য।

পোশাক নির্বাচন
পোশাকটি এমন তন্তুর হওয়া চাই যাতে দক্ষভাবে শরীরের আর্দ্রতা ও তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। বিভিন্ন অভিযানকারীর মতে, এক্ষেত্রে উলের পোশাক ভালো কাজে দেয়। কেননা উল গরমকালে শরীরকে ঠান্ডা রাখে, আর শীতে শরীরকে উষ্ণতা দেয়। এছাড়াও উল এন্টিব্যাকটেরিয়াল হওয়ায় পরপর বেশ কিছুদিন গায়ে থাকলেও অত বাজে গন্ধ হয় না যতটা হয় যেকোনো কৃত্রিম তন্তুর পোশাকে।

Image result for tour dressপ্যান্ট নির্বাচনের ক্ষেত্রেও আরামের ব্যাপারটা মাথায় রাখা উচিৎ। কিছু প্যান্ট আছে যার পায়ের দিকটা সহজেই খুলে ইচ্ছেমত হাফপ্যান্ট বানিয়ে ফেলা যায়। তাই যেসব জায়গায় আবহাওয়া ঠান্ডা-গরমে ওঠানামা করে বা হয়ত কিছু জায়গায় আপনার পানিতে নামা প্রয়োজন, সেসব জায়গায় এ ধরনের প্যান্টগুলো বেশ কাজে দেয়।

দিকনির্ণয়
যারা প্রকৃত অ্যাডভেঞ্চারে আগ্রহী এবং দুর্গম জায়গাগুলোতে অভিযান করতে চান বা পছন্দ করেন তাদের অবশ্যই মানচিত্র এবং কম্পাসের ব্যবহার জানা উচিৎ। আজকাল মোবাইলের ম্যাপ ও জিপিএস এর উপর নির্ভরশীলতা বাড়ায় এই ব্যাপারটা অনেকেই গুরুত্ব দেন না। কিন্তু এমন অনেক পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে যেখানে হয়ত আপনার মোবাইলের চার্জ শেষ হয়ে গেছে কিংবা নেটওয়ার্ক পাওয়া যাচ্ছে না, এমন সময়ে আপনার দিকনির্ণয়ের জ্ঞানটুকুই আপনাকে বিপদ থেকে বাঁচাবে।

হাইড্রেটেড থাকা
ভ্রমণের সময় পানি শূন্যতার লক্ষণগুলো বুঝতে হবে। যেমন, অতিরিক্ত ক্লান্তি, উচ্চতায় অসুস্থ বোধ করা, মাথাব্যাথা, শুষ্ক ত্বক ও ঠোঁট ইত্যাদি। বিভিন্ন পর্বতারোহী ও ট্রেকারদের মতে সবচেয়ে ভালো হয় শরীর আগে থেকেই হাইড্রেটেড করে নেয়া। অর্থাৎ রওনা করার পূর্বেই যথেষ্ট পানি পান করে নেয়া নেয়া এবং চলার পথে ইলেক্ট্রোলাইট ট্যাবলেট পানিতে গুলে তা খেয়ে নেয়া। ইলেক্ট্রোলাইট ট্যাবলেটগুলো যথেষ্ট শক্তি দেয় ভ্রমণে হাঁটার জন্য, সাথে শরীরকেও হাইড্রেটেড রাখতে সাহায্য করে বেশি সময়ের জন্য।

Image result for travel tips

ব্যাকপ্যাক গোছানো
প্রথমেই আপনার ভ্রমণে কী কী লাগবে তার একটা তালিকা করে সব জিনিসপত্র একত্র করে ফেলুন। এরপর হালকা, মোটামুটি ভারী ও ভারী জিনিসগুলো আলাদা করুন। যেসব জিনিস অপেক্ষাকৃত কম ভারী এবং শুকনো থাকা জরুরী, যেমন তাবু, স্লিপিং ব্যাগ, এগুলো ব্যাগের নিচের দিকে নিয়ে তার উপর অপেক্ষাকৃত ভারী জিনিসগুলো নিন যাতে ভারটা আপনার মেরুদন্ডের কাছাকাছি পড়ে। দিনভর আপনার যেসব জিনিসপত্র প্রয়োজন হতে পারে, যেমন ম্যাপ, হালকা খাবার, সানগ্লাস, টুপি, পানি, বৃষ্টিরোধক জ্যাকেট এই জাতীয় জিনিসগুলো উপর দিকে ও আশেপাশের ছোট পকেটগুলোয় রাখুন যাতে দরকারে সহজেই বের করতে পারেন।

প্রয়োজনীয় ঔষধ
আপনি যখন অ্যাডভেঞ্চারে যাচ্ছেন সেখানে যেকোনো পরিস্থিতির উদ্ভব হতে পারে। এবং আশেপাশে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা বা ঔষধ না পাওয়াই স্বাভাবিক। এজন্য প্রাথমিক চিকিৎসার প্রয়োজনীয় সরঞ্জামাদি, ব্যথা নিরোধক ঔষধ, জ্বর ও ঠান্ডার ঔষধ, মাংসপেশীতে ব্যবহারের স্প্রে- এসব প্রয়োজনীয় ঔষধ অবশ্যই মনে করে সাথে নেয়া উচিৎ….