একটা বিষয়ে প্রচুর প্রশ্ন আসে। সেটা হলো, মূল্য সংযোজন কর ও সম্পূরক শুল্ক আইন, ২০১২ এর ধারা ৪৯(২)-তে উল্লেখ রয়েছে যে, সরবরাহকারী নিবন্ধিত/তালিকাভুক্ত না হলে এবং ভ্যাট চালানপত্র ইস্যু না করলে উৎসে কর্তনকারী তার কাছ থেকে ক্রয় করবে না এবং মূল্য পরিশোধ করবে না। উৎসে মূল্য সংযোজন কর কর্তন ও আদায় বিধিমালা, ২০২০ এর বিধি ৬(১) এ একই বিধান উল্লেখ রয়েছে। আবার, ক্রয় হিসাব পুস্তকের বিশেষ দ্রষ্টব্য (২) এ উল্লেখ রয়েছে যে, অনিবন্ধিত ব্যক্তির নিকট হতে ক্রয় করা হলে উক্ত ব্যক্তির পূর্ণ নাম, ঠিকানা ও জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর উল্লেখ করতে হবে।

বিক্রয় হিসাব পুস্তক এবং ক্রয়-বিক্রয় হিসাব পুস্তকেও এমন বিধান উল্লেখ রয়েছে। আমাদের দেশের ভ্যাট ব্যবস্থাপনার যে বাস্তবতা তাতে মাঠ পর্যায়ে অনেক নিবন্ধনযোগ্য প্রতিষ্ঠান এখনো অনিবন্ধিত রয়েছে। তাছাড়া, কেনো কোনো নিবন্ধিত প্রতিষ্ঠান চালানপত্র ইস্যু করে না। মাঝে মাঝে এমনও হয় যে, কিছু পণ্য রয়েছে যা অন্য কোথাও পাওয়া যায় না, এমন অনিবন্ধিত বা ভ্যাট চালানপত্র ইস্যু করে না এমন ব্যক্তির কাছ থেকেই কিনতে হয়। একদিকে বিধান রয়েছে যে, অনিবন্ধিত ব্যক্তির নিকট থেকে কেনা যাবে না, আবার, উল্লেখ রয়েছে যে, কিনলে নাম, ঠিকানা, জাতীয় পরিচয়পত্র উল্লেখ করতে হবে। বাস্তবে বাধ্য হয়েও অনেক সময় এমন ব্যক্তির নিকট থেকে কিনতে হয়। এমতাবস্থায়, ক্রেতার করণীয় কী সে বিষয়ে প্রচুর প্রশ্ন আসে। এরূপ প্রশ্নের আইনসঙ্গত উত্তর দেয়া যায় না, বাস্তবসম্মত উত্তর দিতে হয়। তা হলো, যদি এমন বিক্রেতার কাছ থেকে কেনার প্রয়োজন হয়েই পড়ে তাহলে ভ্যাট নিজে জমা দিয়ে দিতে হবে। তাহলে আপনি অডিট আপত্তি থেকে অন্তত মুক্ত থাকতে পারবেন (চলবে)। (ড. মোঃ আব্দুর রউফ, ১৯.০৭.২০২০)।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here