বাংলা আবছায়া

শাহিনুর ইসলাম পলাশ

 

তোমরা ভুলে গেছ সেই কাল রাতের কথা ?
সেই ৭১ এর শত্রু কাঁপানো শক্তি
বাঙালীর প্রলয় জাগানো অবিসংবাদিত নেতা
জাতীয়তাবাদ ও স্বাধীনতা আন্দোলনের জনক কে
হত্যা করে রেখে গিয়েছিলো ৩২ নং বাড়ির সিঁড়িতে
বোধ হয় সেই সময় টাতেই লুন্ঠিত স্বপ্নে দীপ্ত বিচালি স্লোগান স্তব্ধ হয়ে মিলিয়ে গেলো সেই সিঁড়ির রক্তে।

যেই তর্জনীর ইশারায়,
লক্ষ লক্ষ বাঙালী পেয়েছিল প্রতিবাদের ছন্দ
পেয়েছিল সত্ত্বার মুক্তির আশা
সেই তর্জনীটিকেই দেহ থেকে আলাদা করে ছাড়লো!!

যেই ছাতির সাহসে আমরা বলতে শিখেছিলাম,
“এক সূত্রে বাঁধিয়াছি সহস্রটি মন,
এক কার্যে সঁপিয়াছি সহস্র জীবন
আমরা নব মুজিবের দল
হাতে নিয়ে অগ্নি মশাল ”
সেই ছাতি টাকেই গুলিতে ক্ষত বিক্ষত করে রেখে গেলো!

গোটা জাতির সৎ সাহসের বাতিঘর টাকেই
অন্ধকার করে রেখে গেল সেই রাতে।
তারপরেও ক্ষ্যান্ত হও নি
হত্যার পরেও কত ষড়যন্ত্র কত নকশা
জাতীয় বেইমান মোসতাক
আরোপ করলো ইনডেমিনিটি আইন
খুনীদের দিল বীরের খেতাব!!
জেনারেল জিয়াউর রহমান বলেছিল,
“প্রেসিডেন্ট ইজ কিল সো হোয়াট!
ভাইস প্রেসিডেন্ট ইজ দেয়ার”!!
যেন মুজিব হত্যা কোন দাপ্তরিক ব্যাপার!!

জাতির আয়নায় যার প্রতিচ্ছবি দেখে
শান্ত হয়েছি আমরা বাঙালী
তার হত্যাকারী রাও দিব্যি
ধরা ছোয়ার বাইরে গেলো চলে
একটা বট গাছ কে উপড়ে ফেলে যেন তোমরা আমাদেরকেও পংগু করে ছাড়ল।

আমরা এখনো রক্ষা করতে জানি না
জাতীয় পতাকা অর্ধনির্মিত মানে পতাকা দন্ডের অর্ধেক/মাঝামাঝি পরিমান নিচে নামানো নয় বরং পতাকার প্রস্থের সমপরিমান নিচে নামানো কে বোঝায়
আমরা যে বুঝি না এখনো!

হে জাতির পিতা,
হে সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালী,
আপনাকে ঘিরে লেখা হবে শত কবিতা গান গল্প
আপনি নিজেই এক বাংলাদেশ
নিজেই যে স্বাধীন পতাকা
আশা রাখি.. আশা রাখি..
আপনার অনুপস্থিতিতে বেড়ে ওঠা
এই জাতির দূর্দিন শেষ হবে একদিন
এখনো যে অনেক দূর্গম পথ বাকি
আমরা নব মুজিবের দল
পিতার রক্ত কখনোই বৃথা যেতে দিব না।

 

 

Shahinul Islam Polash
Department of Fisheries,
University of Dhaka