উইমেন চ্যাপ্টার নামের একটি জনপ্রিয় ব্লগিং সাইডের লেখিকা নারীবাদী এক্টিভিস্ট মার্জিয়া প্রভা এবং তার দুইজন সহযোগীকে আসামী করে মৌলভীবাজার মডেল থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন এক তরুণী। এই ঘটনার পর থেকে মার্জিয়া পলাতক।

অভিযোগে ভুক্তভোগী ওই তরুণী বলেন, মার্জিয়া প্রভা তার বন্ধুর ভাড়া বাসায় নাইট পার্টি আয়োজনের কথা বলে ওই পার্টিতে মেয়েটিকে ডেকে নিয়ে যায় এবং ধর্ষনের সুযোগ সৃষ্টি করে দেন। এছাড়াও মেয়েটিকে অতিরিক্ত গাঁজা সেবন করিয়ে তাকে নেশাগ্রস্থ করেন যাতে সে ধর্ষণে বাধা সৃষ্টি না করে। মেয়েটির বন্ধু মাহমুদ বিষয়টি বুঝতে পেরে ধর্ষণে বাধা দিতে গেলে মার্জিয়া প্রভা তাঁকে সেখান থেকে সরিয়ে আনেন এই বলে যে, ছেলেটি মেয়েটির পূর্ব পরিচিত, এবং ওদের দীর্ঘদিনের প্রেম আছে।
এই মামলার প্রধান আসামী তুষার ও মার্জিয়া বর্তমানে পলাতক থাকলেও প্রভার প্রেমিক রায়হান বক্স গত ৩ সেপ্টেম্বর আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। আদালত তাকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এদিকে গত ৭ সেপ্টেম্বর মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা তাপস চন্দ্র রায় মামলার সুষ্টু তদন্তের স্বার্থে আসামী রায়হান বক্সকে আদালতের মাধ্যমে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। আদালত দুই পক্ষের শুনানি শেষে একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।